কোন কবি যখন একটা কবিতা লিখেন,
হে পাঠক, তুমি অবশ্যই জেনে রেখো,
তিনি তখন কোন পাঠক খোঁজেন না।
তিনি খোঁজেন একজন বিশ্বস্ত শ্রোতা।


কবির কবিতাগুলো যেন একেকটি গান,
যার সুর বাঁধা থাকে মনের আঙিনায়।
যার তাল লয় আন্দোলিত করে প্রাণ,
কবির আবেগ অনুভূতির তবলায়।


কবির মনের ভেতর যেসব কথাগুলো
অহর্নিশ ঘুরপাক খায়, আঁকুপাঁকু করে,
কবি সেসব সবাইকে বলতে পারেন না।
পারলেও, কে শুনবে অতটা সময় ধরে?


কবি যখন নিভৃতে বসে কবিতা লিখেন,
তিনি নিজ মনে এক গানও গেয়ে যান।
সে গান শুনে যদি কেউ কন্ঠ মেলায়,
পাখিদের কলতান স্তব্ধ হয়ে যায়,
ঝরা পাতার দল কান পেতে রয়,
কোন বিরহিনীর বদ্ধ বুকে সানাই বাজে,
কৃতার্থ কবি তখন  তাদের কথা ভেবে
তাদের গোপন মনোভূমে পদধূলি দেন।


ঢাকা
০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৪
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।