কখনো ভাবিনি তখন,
যে হাত পরশ বুলায়,
পরম স্নেহ মমতায়,
সে হাত কতটা নরম।


ভাবিনি কি করে সম্ভব,
যে হাত রাঁধে বারে,
কখনো আগুনে পোড়ে,
সে হাতটা হবে পেলব।


কখনো ভেবে দেখিনি,
মুখে অন্ন তুলে দেওয়া
দুটো হাতে কত মায়া,
অভুক্ত কভু থাকিনি।


কখনো ভাবিনি একথা,
দোলনা দোলানো হাতে,
নিশীথে, সন্ধ্যায় প্রাতে,
হয়েছে কি কোন ব্যথা?


নারী, তোমার দুটো হাত,
আমার জীবনের কান্ডারি,
আঁধারে আলোর দিশারি,
না পেলে, ব্যর্থতা নির্ঘাত।


ঢাকা
১২ সেপ্টেম্বর ২০১৪
কপিরাইট সংরক্ষিত।