আমায় যদি প্রশ্ন করো,
               কবি,
তুমি কিসে বেশী শান্তি পাও?
আমি মৃদু হেসে বলি--
চিবুকে ছোয়ানো মায়ের আঁচল,
আমার গাঁয়ের সিগ্ধ জল,
ঘুগড়ার বিলের রক্ত-কমল!
               কবি,
তুমি কিসের ঘ্রানে পাগল হও?
আমি মৃদু হেসে বলি--
শরতের ছাতিম ফুলের ঘ্রাণ,
কাঁদামাটির ঘ্রাণে আকুল প্রান,
হাসনাহেনা ঘ্রানে মন আনচান!
               কবি,
কিসের দৃশ্য তোমার দৃষ্টি জুড়ায়?
আমি মৃদু হেসে বলি--
হংসমিথুনের সুখের ভেসে যাওয়া,
জোড়া শালিকের গান গাওয়া,
ধানের শীষে মাতাল হাওয়া!