জাঁতাকল  
ভেজাল নিয়ে মাতামাতি      
    কেন ট্যাঁরা দৃষ্টি?
ওরা মোদের সতী-সাথী      
    কে বলে অনাসৃষ্টি?


খাঁটিটাও পায় কি মালী
    আছে কি দূরদৃষ্টি?
ছার রে সব খামখেয়ালি        
    সে’সব অনাসৃষ্টি।


খাঁটি জিনিস নেই মোটে        
   কোথাও এই জগতে,
মাটি টাও বিষের ঘাতে        
   গ্যাঁজা তোলে রাতে।


জনগণ আছেন সবে        
    সড়কে ও অলিন্দে,
খাঁটিটাই খেলেন কবে
    সকাল থেকে সন্ধ্যে?


ভেজালগুলি পেটে গেলে        
    জাগে পেটের পিলে,
তবুও সেসব না পেলে        
    ক্রোধে দেহ জ্বলে।


ভেজাল খাই তৃপ্তি করে         
    মুখে হাসি ঝরে,  
পিলেয় জ্বালা ধরলে পরে        
    ছন্নছাড়া হই রে।


অ্যান্টাসিড পুড়লে গলে      
    সে-ও যায় জলে,
চিকিৎসকের খোঁজ চলে
    ভীষণ পীড়া হলে।
      
পরীক্ষার সেই জাঁতাকলে        
    সকলেই হই কাবু,
ব্যয়-বহরের হিসাব পেলে      
    খাই সবে হাবুডুবু।


পোকা নড়লে এই মগজে  
    দিয়ে দি’ সব গরজে
ভেজালগুলি রোখার কাজে  
    ক’জন আছেন  মজে?