বহিছে কাল,নদী,হিমবাহ,গ্রহ-শশী
বৃদ্ধ সেসব ভাবে বসে,দিবানিশি।
তার শৈশব,কৈশোর,যৌবন গেছে  
গতিময় ভাবনার বশে,কী সরসে!
পাশ দিয়ে পরিজন গেছে বারবার  
সে,পেত না সময় ফিরে দেখবার।  
বার্ধক্যে সে স্থবির-প্রায়,রোজরোজ  
কর্মক্ষমতা হারা যেন শান্ত সরোজ।
অসুখ-বিসুখ বাড়ে,আগাছার বাড়া
চিকিৎসকের ছোটাছুটি,নিত্য ধারা।  
বার্ধক্যে কাল মূল্যহীন,অবসর-সময়    
প্রাচুর্যে প্রবীণ ভাবে,‘একি দুঃসময়’!