চোখের গর্তে বাসা বেঁধেছে দারিদ্র
প্রতিটা দিন প্রতিটা ক্ষণ বড়ই কষ্টের
দিন রাত্তির কেটে যাচ্ছে গভীর ভাবনায়
জীবনের পরতে পরতে এত দুঃখ লুকিয়ে কে জানতো!


পায়ের নীচের মাটি ক্রমশ সরে যাচ্ছে মনে হয়
সবুজ বনানীর রঙ ধূসর থেকে কালো হচ্ছে
আকাশ জুড়ে খেলা করছে বেয়াড়া মেঘের দল
হৃদয়ের কথা শুনবার লোক কি আছে কেউ?


বাতাসে ভেসে বেড়াচ্ছে ভয়ঙ্কর রোগের জীবাণু
অদৃশ্য শত্রুর মত যে কাউকেই মারবে ছোবল
ভয়ে গৃহ বন্দী মানব জীবন, অর্থনীতি তলানিতে
খেটে খাওয়া মানুষগুলো হাহাকার করেছে দুটো পয়সার জন্যে!


কেউ কখনও দেখছো কী ছেঁড়া গেঞ্জির নীচে কঙ্কাল শরীর
হাড় ক’খানাই সার, শুকিয়ে গেছে চিরহরিৎ অরণ্যের মত
তুবও বেঁচে থাকতে হবে জীবনের আঙিনায় সমস্ত কষ্ট পেরিয়ে
জীবন মৃত্যুর পসরা সাজিয়ে বসে আছেন যে স্বয়ং ঈশ্বর!


       *******


রচনাকাল - ৩০/০৭/২০২০