===========================================


একজন কবি,
কিছুতেই কবিতা লিখতে পারছে না |
কবিতা লিখতে না পারার অসহ্য যন্ত্রনা ,
তাকে ছিন্ন বিচ্ছিন্ন করে রক্তাক্ত করছে প্রতি মুহূর্ত |`
তবু ও
সাদা কাগজের উপর কলম ঠুকে,
কবি র,
রাত কাটছে, দিন কাটছে,
কিন্তু কিছুতেই কবিতা লিখা হচ্ছে না  |
কবিতার ছন্দ, কবিতার ভাবনা, কবিতার কথা গুলো ,
কেমন তুলোর মতো মুক্ত আকাশে উড়ে বেড়াচ্ছে,
কিছুতেই ধরা দিচ্ছে না |
কবির ঘুমহীন  রক্তলাল  বিস্ফারিত চোখ,
যেন ভিসুভিয়াসের আরেক বার অগ্নুৎপাতের অপেক্ষায়,
তবুও কবিতা লিখা হচ্ছে না |


অথচ,


একজন চাষী মনের আনন্দে চাষ করছে ,
ধান বুনছে, ফসল ফলাচ্ছে, মই দিচ্ছে,
আবার গুনগুন করে গান ও গাইতে পারছে |
একজন রিকশাওয়ালা ,
মধ্য  দুপুরে স্বঘোষিত অবসরে,
মনের আনন্দে সিটের  উপর দু পা তুলে দিয়ে ,
বিড়ি ফুঁকতে পারছে |
একজন পাখিওয়ালা,
বদ্ধ খাঁচার আবদ্ধ পাখি গুলো,
মুক্ত আকাশে উড়তে দিতে পারার আনন্দে ভাসতে পারছে |
একজন রাজনীতিবিদ,
অনর্গল মিথ্যে কথার  ঢালি সাজিয়ে,
ভোট চাইতে পারছে  |
আবার ভোট পেয়ে সিংহাসনে বসে ,
যা ইচ্ছে তাই করতে পারছে  |
একজন সেনানায়ক অবলীলায় গনতন্তের টুটি চেপে ধরতে পারছে |
আবার পার  পেয়ে ও যাচ্ছে |
একজন পুলিশ কি সাবলীল ভাবেই না
উপরি কামাই পকেটে পুরতে পারছে |
একজন তরুণ,
যার মেধার স্ফুরণে আলোকিত হওয়ার কথা ছিল পৃথিবী,
নেশার নীল ধোঁয়ার অন্ধকারে আচ্ছন্ন থেকে ভাবছে ,
কি লাভ এই নষ্ট পৃথিবীর কষ্ট  হয়ে বেঁচে থাকার |
একজন পথবধু,
লাল গোলাপ খোঁপায় গুঁজে
খদ্দেরের অপেক্ষা করতে পারছে |
একজন আমলা,
কত সহজেই না দেশ কে বেঁচে দিতে পারছে |
একজন বিচারক,
বিধাতা প্রদত্ত ক্ষমতা অগ্রাহ্য করে,
একজন নিরপরাধ কে ফাঁসি দিতে পারছে  |


শুধু কবি |
শুধু একজন কবি,
কিছুতেই কবিতা লিখতে পারছে না |


সমাজতন্ত্রের অলীক তত্ত্ব এখন দিবা লোকের মতো উন্মুক্ত |
লেনিন স্কয়ারে  লেনিনের মরদেহ এখন আর পূজনীয় নয়  |
কার্ল মার্ক্স্ আর গোর্কি এখন আবর্জনার স্তূপে |
চে গুয়েভারা র মতো বীরের মৃত্যুর চেয়ে,
এখন শত বৎসর বেঁচে থাকা ই শ্রেয় |
প্রবল প্রতাপ সাম্রাজ্যবাদ এখন ,
মৌলবাদের নৃশংসতা র কাছে  নতজানু |
একজন মুক্তি কামী গণতন্ত্র বাদী যুবকের মৃত্যুতে,
এখন আর রাজপথে ঢল নামে না |
ধর্ষণের ঘটনায় এখন আর গণ রোষ তৈরি হয় না |
একজন অমিত সাহসী যুবক,
এখন আর ট্যাংকের সামনে দাঁড়িয়ে,
মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার প্রয়োজন বোধ করে না |


কিন্তু একজন কবি ,
কিছুতেই কবিতা লিখতে পারছে না  |
কারণ ,
কবির হাত শিকলে বাঁধা |
সেই শিকলে র প্রতিটি গ্রন্থি কবির নিজের তৈরি করা |
কবি বন্দি তার নিজের কারাগারে |
কবি নিজেই, নিজের কারাগারে র সশস্ত্র প্রহরী |
কিছুতেই কবিতা লিখতে দেয়া যাবে না |
কারণ ,
কবিতা মুক্ত |
কবিতা স্বাধীন |
কবিতা কোনো রক্ত চুক্ষুকে ভয় পায় না |
এই জন্যই কবিতা লিখা হয় না |
এই জন্যই,  
কবি,
কবিতা লিখতে পারছে না |



==============================================